Author: Azharul Islam Khan

শত্রু তুমি বন্ধু তুমি দুরিয়ান (Durian)

বিচিত্র একটা ফল দুরিয়ান নিয়ে কিছু তত্ব ও তথ্য পরিবেশন করছি। দুরিয়ান হলো তীব্র সুগন্ধযুক্ত ফল দেখতে আমাদের জাতিয় ফল কাঁঠালের মত। দুরিয়ানের ফুড-ফুড রিয়েকশন খুবই ভয়াবহ। কথায় আছে “সৎ সংগে স্বর্গ বাস অসৎ সংগে সর্বনাস” এই ফলের ব্যাপারটা অনেকটা এরকম। সুধী পাঠক চলুন দেখি এর ভয়াবহতা।

ইন্দোনেশীয় কৃষক ও Luwak Coffee

অনেকের ধারনা অনন্য স্বাদ গন্ধ ও এ্যরোমার জন্য নয়, শুধু এর অনন্য গল্পের কারনেই এই কফি এত বিক্ষাত হয়েছে বা সারা পৃথিবীতে এর চাহিদা এত বেশী বেড়েছে। আমি এর গল্প শুনে অল্প অল্প ভালোবেসেছিলাম তাই ইন্দোনেশিয়া সফরকালে এক পেয়ালা পান করার সুযোগ নিয়েছিলাম যদিও এটি আমার জন্য বিলাসিতা ছিলো তাতে কি পৃথিবী বিক্ষাত কফি বলে কথা!

হিজলের খোঁজে বোটানিক্যাল গার্ডেনে একদিন

এই বাগানে বৃক্ষ জাতীয় ২৯৬ টি প্রজাতি আছে যার মোট উদ্ভিদের সংখ্যা ২৮১০০টি,ঝোপ জাতীয় ৩০০ প্রজাতির উদ্ভিদের সংখ্যা ৮৩৫২টি,লতা জাতীয় ৫৫টি প্রজাতির উদ্ভিদের সংখ্যা ৪৬৫৬টি, তৃণ জাতীয় ২৫৭টি প্রজাতির উদ্ভিদের সংখ্যা ১৫১৭টি,অর্কিড জাতীয় ৮০টি প্রজাতির উদ্ভিদের সংখ্যা ২০০০টি, ক্যাকটাসের সংখ্যা ৪০০০টি এবং গোলাপের সংখ্যা ৭৫০০টি। মোট উদ্ভিদের সংখ্যা ৫৬১২৫টি।

উদ্ভিদের ফিজিওলজিক্যাল রহস্য

ফুল কেন রঙিন হয় এই ব্যপারে কৌতুহলের অন্ত ছিলো না, এখনো হয়ত অনেকের মনে এই প্রশ্ন জাগতে পারে। ফুল লাল হওয়ার জন্য দায়ী ক্রোমোপ্লাস্ট নামক পিগমেন্ট। ক্রোমোপ্লাস্টে থাকে ক্রোমোফিল আর এটিই হলো উদ্ভিদ এর কোন অঙ্গের বর্নের জন্য দায়ী।

পঙ্খিরাজ ফার্ণ

প্রায় দেড় হাজার কোটি বছর আগের কথা। মহাকাশে দু’টি বিশাল নক্ষত্রের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি নক্ষত্র ভেঙ্গে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। ওই ভাঙ্গা অংশগুলো থেকেই কোটি কোটি বছরের বিবর্তনে পৃথিবী...

ফুলের বংশ পরিচয়

বিয়ে-শাদি বলে কথা! আর যাই হোক এটা নিয়ে তো অবহেলা করা যায় না! তাইতো গুরুত্বের সাথে প্রাধান্য দেয়া হয় বংশ পরিচয় উপাধি পদবী ইত্যাকার বিষয় গুলোকে। আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় অধিকাংশ...

সামুদ্রিক আগাছা Sargassum

সমুদ্র তার বক্ষে শুধু প্রানীদের আশ্রয় দেয়নি দিয়েছে অনেক উদ্ভিদের আশ্রয়। তাইতো আমরা উপমা দিয়ে থাকি “সমুদ্রের মত বিশাল হৃদয়”। এমনি এক উদ্ভিদ সারগাসাম এই বিশাল সমুদ্রে আশ্রিত যাকে মেক্রো শৈবাল বলা হয়। এটি মুলত বাদামি শৈবাল যা Phaeophyceae শ্রেনী ভুক্ত ও Fucales বর্গের সামুদ্রিক উদ্ভিদ। এদের অসংখ্য প্রজাতি আছে যারা ক্রান্তিয় ও উপক্রান্তিয় সমুদ্রে বসবাস করে। আমাদের সেন্টমার্টিন কোরাল দ্বীপে এদের দেখা যায়।

আমাদের পরিবেশ, প্রতিবেশ ও গ্রীস্মের তাপদাহ

জনজীবন আজ বিপর্যস্ত। ঢাকা সিটিতে অপরিকল্পিত ভাবে গড়ে উঠা নগরায়নের কারনে আজ আমাদের পরিবেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। যেখানে বিশ্বের সব উন্নত নগরীতে পরিকল্পিত ভাবে বৃক্ষের আচ্ছাদন তৈরী করা হয় যার ক্যানপিতে গড়ে উঠে একটি শ্যামল স্নিগ্ধ শহর কিন্তু আমাদের শহরে নতুন রাস্তা, হাউজিং, স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন সরকারী বেসরকারি দপ্তর তৈরি করতে যেয়ে প্রতিবছরই কেটে ফেলা হচ্ছে বহু বছর ধরে বেড়ে উঠা বৃক্ষ। যেখানেই উন্নতির ছোঁয়া লাগছে সেখানেই বৃক্ষ নিধন এ কেমন সভ্যতা! এ কেমন উন্নতি!

হরেক রকম কচু

কথায় কথায় কচু শব্দটি অনেক তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে ব্যবহার করা হয়। এই কচুর এত গুনাগুন তারপরেও কেন কচু শব্দটিকে ব্যাঙ্গাত্বক ভাবে ব্যবহার করা হয় আমার জানা নেই। কচু দিয়ে ইলিশ রান্না করলে আপনি আমি খুশি হয়ে যাই কিন্তু যখনই কচু শব্দটি আপনাকে আমাকে উদ্দেশ্য করে ব্যবহার করা হয় তখন আমরা তেলে বেগুনে জ্বলে উঠি। কারন হিসেবে এর ব্যখ্যা আমার জানা নেই। তবে কবি গুরু কচুকে বিশেষ সম্মান দিয়ে কবিতা রচনা করতে ভুল করেননি।

Tridax

প্রকৃতির অলংকার ত্রিধারা

Tridax বলতে এই ফুলের পাপড়ীতে তিনটি খাঁজ বা লোব কে বোঝায় (Holm et al)। বাংলায় বলতে গেলে “শায়িত লতানো তিন লোব বিশিস্ট বা খাঁজ কাটা ফুল”। বাংলায় “ত্রিধারা” নামকরন করার কারন হলো এই উদ্ভিদের পাপড়ীতে তিনটি লোব বিশিস্ট খাঁজ কাটা আর এর উপর ভিত্তি করেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উদ্ভিদ বিজ্ঞানি প্রফেসর ড: কাজী আব্দুল ফাত্তাহ ১৯৭০ সালে এর বাংলা নামকরন করেন “ত্রিধারা”

পাখি কর্তৃক পরাগায়নের দৃশ্য দেখানো হয়েছে।

উদ্ভিদজীবন ও পলিনেটর

উদ্ভিদের পুষ্পরস সব পলিনেটর পছন্দ করে না। পরাগের জীবনকাল (Longivity) পরাগায়নের জন্য বিশেষ ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। সার্থক পরাগায়ন ও নিষেক প্রক্রিয়াটি খুবই জটিল একটি প্রক্রিয়া। বিভিন্ন পরিবেশগত বিষয়ের সাথে পলিনেটর সক্রিয় থাকে যখন এদের সাথে উদ্ভিদের নিবিড় সম্পর্ক গড়ে উঠে তখনই সঠিক কার্যক্রম ঘটে ও ভ্রূণ, বীজ তথা ফলন নিশ্চিত হয়।

ভ্যানিলা পুস্প

সুবাসিত অর্কিড ভ্যানিলা

আমরা শৈশবে কৈশোরে যৌবনে যে সব ভ্যানিলা আইসক্রিম, কেক, পুডিং খেয়েছি বা খাচ্ছি সেই ভ্যানিলার প্রধান উৎস হলো এক প্রকার অর্কিড যার গনের নাম Vanilla. আমি সেই ভ্যানিলার কথাই বলছি, এই ফ্লেভার আমরা পেয়ে থাকি ভ্যানিলা নামক এক প্রকার অর্কিডের বিন (ফল) থেকে। অর্কিড বিনগুলো হাতে নিলে এর কোন প্রকার গন্ধই পাওয়া যায় না একে বিশেষ ভাবে প্রক্রিয়াজাত করে তারপর তৈরি করা হয় মুল্যবান ভ্যানিলা এক্সট্রাক্ট।

কুসুমে কুসুমে চরণচিহ্ন

ফুলের সাথে আমার প্রথম পরিচয় কবে হয়েছিলো মনে নেই। তবে ছোট বেলায় ঝুমকো ফুলের (Passiflora foetida) সাথে আমার প্রনয় ছিলো গোপনে অভিসার হতো, এই ফুলের বেগুনী রঙ ও মিস্টি গন্ধ আমাকে হাতছানি দিয়ে ডাকতো, তার ডাকে সাড়া দিয়ে তাকে চুমু খেতে যেয়ে কত পিপড়া যে আমার নাসারন্ধ্র দিয়ে ঢুকেছে তা ঝুমকা ফুল জানে।

তমালের স্ত্রী পুস্প

বিপন্ন উদ্ভিদ তমাল

Diospyros যা প্রাচীন দু’টো গ্রীক শব্দ থেকে নেয়া হয়েছে। “Dios” ও “pyros” যার বাংলা শব্দার্থ হলো ঐশ্বরিক ফল ও ঐশ্বরিক খাদ্য। এছাড়াও কেউ কেউ এর শব্দার্থ করেছেন “Wheat of Zeus”. যাই হোক Diospyros নিয়ে ব্যখ্যা অনেকটাই কনফিউজিং যেমন অনেকেই একে ব্যখ্যা দিয়েছেন “God’s pear” এবং Jove’s fire” বলে।

Lemon

জীবন বাঁচাতে ও সাজাতে উদ্ভিদ

সকালে রাস্তার পাশে চা পান করতে যেয়ে দেখলাম কমলালেবুর রস দিয়ে তৈরী রং চা (Tea without milk), নতুনত্ব দেখে আগ্রহ ভরেই অর্ডার দিলাম তখনও চিন্তা করিনি Cytras ফল নিয়ে লিখবো কিন্তু বিক্রেতা কমলা লেবুর চায়ের বর্ননা করছিলো এমনভাবে যে আর না লিখে পারলাম না।

রূপসী বাতি লতা

এরা অন্য বৃক্ষ পুরানো দেয়াল কে অবলম্বন করে বেড়ে উঠে এবং নোড ও ইন্টারনোড থেকে যে শেকড় বের হয় তা অবলম্বনকে আঁকড়ে ধরে উপরের দিকে ধাবিত হয়। তবে এরা পরজীবী নয় পরাশ্রয়ী লতা নিজেদের খাদ্য নিজেরা প্রস্তুত করতে পারে। আদ্র আবহাওয়া ছায়াযুক্ত পরিবেশে ও সামান্য বৃস্টিতে এরা স্বাচ্ছন্দে বেঁচে থাকে। বাতি লতার ফুল কখনো দেখিনি তবে যেটুকু জেনেছি এর ফুল গোলাপী লাল বর্নের ও পুস্প বিন্যাস imbrecate.

ছলনাময়ী উদ্ভিদ ধাইরা

আমাদের চারপাশে কত রকমের উদ্ভিদের ছড়াছড়ি। খালিচোখে দেখা যায় না এমন উদ্ভিদের কথা না হয় বাদই দিলাম, চোখে দেখা যায় সেগুলো অতি ক্ষুদে থেকে সুবিশাল মহীরুহ আকার আকৃতির, গঠনবৈশিষ্ট্যে এরা...

উদ্ভিদের অস্ত্র গোলাবারুদ ও আত্মরক্ষার কৌশল

মানুষ নিজেকে শত্রু থেকে রক্ষার জন্য কত রকমের প্রোটেকশন নেয়। এই ধরুন কোন একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তির জন্য তিন চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় সৃষ্টি করা হয়। রাস্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি বর্গের নিরাপত্তার...

কাউবয় লিপস্টিক ও দইগোটা

শুরুতেই একটা কথা বলে রাখছি আমার লেখার প্রথম অংশটি শুধু ছেলেদের জন্য প্রযোজ্য হবে সুতরাং ভগ্নিরা মন খারাপ করবেন না। আমরা সকলেই সৌন্দর্য পিপাষু আর আমাদের ভগ্নিরাও সাজতে পছন্দ করেন...

রূপে গুনে অপরাজিতা

বহু গুনে গুনান্বিত অপরাজিতার সৌন্দর্য যে কারো মন কাড়ে। Fabaceae পরিবারের এই লতানো উদ্ভিদের (বৈজ্ঞানিক নাম Clitoria ternatea L) ফুল দেখতে গাঢ় নীল রঙের কিন্তু নিচের দিকটা এবং ভেতরটা সাদা-...