‘ব্যাকটেরিয়া সভ্যতা’


6 June 2016. কালের কণ্ঠ ডেস্ক:

রাস্তাঘাট, উঁচু উঁচু স্তম্ভ, খিলান, খাঁজকাটা এবং থাকে থাকে সাজানো একটি অবকাঠামো—সবই সমুদ্রের তলদেশে। ওপর থেকে দেখলে মনে হতেই পারে, কোনো প্রাচীন নগরীর ধ্বংসস্তূপ। মনে হওয়াটাও স্বাভাবিক। কারণ গ্রিসের ‘ঝাকিন্থস আইল্যান্ড’ নামের ওই দ্বীপে এর আগেও মানব সভ্যতার নিদর্শন মিলেছে। কিন্তু না, এবারের সভ্যতা মানবের নয়, ব্যাকটেরিয়ার। খবরটি ছাপা হয়েছে বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী ‘মেরিন অ্যান্ড পেট্রোলিয়াম জিওলজি’তে। ওই ‘প্রাচীন কাঠামো’র সন্ধান মেলে বেশ কয়েক বছর আগেই। আর তখন থেকেই ভাবা হচ্ছিল, সমুদ্রের তলায় লুকিয়ে থাকা ওই ‘প্রাচীন কাঠামো’ মানুষেরই বানানো। ধরে নেওয়া হয়, তার তলায় লুকিয়ে রয়েছে কোনো প্রাচীন নগরীর ধ্বংসাবশেষ! কিন্তু এসব অনুমান মেলেনি। হালের গবেষণায় জানা গেছে, সমুদ্রের অতটা গভীরে ওই কাঠামোটি বানিয়েছিল ব্যাকটেরিয়ারা। কোটি কোটি, লাখো কোটি ব্যাকটেরিয়া। অত বড় কাঠামো, অত সুন্দর, নিখুঁত কাঠামো বানানোটা সামান্য কয়েকজনের কাজ হতে পারে না! তাই শেষমেশ বিজ্ঞানীরা একমত হয়েছেন, কাঠামোটি মানব সভ্যতার নয়, ‘ব্যাকটেরিয়া সভ্যতা’র নিদর্শন। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।

Source: www.kalerkantho.com/print-edition/last-page/2016/06/06/366571

Photo Source: www.theguardian.com

error: Content is protected !!